কেবল রাজধানী নয়, নাটকের চর্চাকে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান

0

কেবল রাজধানী নয়, নাটকের চর্চাকে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী। এজন্য প্রতিটি উপজেলায় স্থায়ী মঞ্চ ও প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা দরকার উল্লেখ করে মনে করেন তিনি। বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের ২৩তম দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে, স্পিকার এই আহ্বান জানান।

নাটক আমার শিল্প সংগ্রাম, মানবমুক্তির হীরন্ময় হাতিয়ার- এই স্লোগান নিয়ে শুক্রবার শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালায় শুরু হয়েছে গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশানের ২৩ তম দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন। এর উদ্বোধন করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরিন শারমিন চৌধুরী।

পরে উদ্বোধনী আলোচনায়, নাট্যচর্চার বর্তমান চিত্র ও নানা সমস্যা তুলে ধরেন দেশের মঞ্চনাটকের পথিকৃৎরা। ফেডারেশন এর যাত্রা। নাটকের অভিন্ন সমস্যা সমাধান করতে চাই। দর্শক বাড়াতে হবে। যে সংগ্রামী চরিত্র নিয়ে ফেডারেশন শুরু হয়েছিল তা আর এখন নেই। জাতীয় দুর্যোগ, সাম্প্রদায়িকতা, মৌলবাদ এর বিরুদ্ধে নাটক কথা বলে। )

নাটক হতে পারে প্রতিবাদের হাতিয়ার। নাটক ডাক দেয় ঐক্যের। শত বাধা অতিক্রম করে নাট্যচর্চা এগিয়ে গেলেও নেই কোন আর্থিক প্রণোদনা ।আলোচনার প্রধান অতিথি জাতীয় সংসদের স্পিকার বলেন- আজকের বিশ্বে যে অস্থিরতা চলছে, তার ইতিবাচক পরিবর্তন নাট্যচর্চার মধ্য দিয়ে সম্ভব। উন্নয়নের মহাসড়কে বাংলাদেশের যে অগ্রযাত্রা তার প্রভাব যেন নাট্যজগতকেও আলোড়িত করে সেজন্য সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানান তিনি। সম্মেলনে গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সব নেতা ও সারাদেশের ফেডারেশানভুক্ত নাট্যসংগঠনগুলোর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। শনিবার সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশনার মধ্য দিয়ে শেষ হবে ২৩তম দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন