কেঁচো কম্পোষ্ট সার উৎপাদন করে স্বাবলম্বী অনেক নারী

0

দিনাজপুরের বিরল উপজেলায় কেঁচো কম্পোষ্ট সার উৎপাদন করে স্বাবলম্বী হয়ে উঠেছে অনেক নারী। প্রতি মাসে তারা আয় করছেন, ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা। কমে গেছে রাসায়নিক সারের ব্যবহার। এই সার ব্যবহারে বৃদ্ধি পেয়েছে জমির উর্বরতা শক্তি ও উৎপাদনশীলতা।

স্বল্প পরিসরে কৃষির মাধ্যমে নারীর আর্থিক সচ্ছলতার মুখ দেখেছেন দিনাজপুরের বিরল উপজেলার দক্ষিণ রামচন্দ্রপুর গ্রামের অনেক কৃষানী। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে ভার্মি কম্পোষ্ট সার তৈরীর প্রশিক্ষণ ও সরকারী-বেসরকারী সংস্থা থেকে ঋণ নিয়ে এই সার উৎপাদন করে তারা ব্যবহার করছে নিজেদের জমিতে। সেই সাথে প্রতিমাসে এই সার বিক্রি করে তারা বাড়তি আয় করছে ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা।

প্রাথমিক ভাবে ৫ জনকে এই পরামর্শ দেয় উপজেলা কৃষি অফিস । লাভজনক হওয়ায় ধীরে ধীরে অনেক কৃষাণী এই সার তৈরী ও বিক্রি করা শুরু করেন। এভাবেই উন্নয়নের মূলধারায় সম্পৃক্ত হচ্ছে কৃষাণীরা। জানালেন কৃষি কর্মকর্তা।

কৃষিভিত্তিক উন্নয়নে নারীদের সম্পৃক্তা বাড়াতে সরকারী-বেসরকারী পর্যায় থেকে আরও কার্যকরী ব্যবস্থা নেওয়া হোক– এমন প্রত্যাশা দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন প্রত্যাশীদের।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন