এবার পহেলা বৈশাখের প্রতিটি আয়োজনেই ‘ইভটিজিং প্রতিরোধ টিম’ থাকবে

0

এবার পহেলা বৈশাখের প্রতিটি আয়োজনেই ‘ইভটিজিং প্রতিরোধ টিম’ থাকবে। আর নাশকতা প্রতিরোধ ও উচ্ছৃঙ্খলা বন্ধে কাজ করবে ভ্রাম্যমান আদালত। এছাড়া মঙ্গল শোভাযাত্রায় মুখোশ পরা যাবে না। পহেলা বৈশাখ উপলক্ষে, সচিবালয়ে আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভা শেষে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এসব তথ্য জানান।

২০০১ সালে পহেলা বৈশাখে রমনা বটমূলে বোমা হামলা আলোড়ন তুলেছিলো গোটা দেশে। এরপর ২০১৫ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসিতে নারী লাঞ্ছনার ঘটনায় সমালোচনার মুখে পড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ ধরনের ঘটনা বন্ধে যে কোন সময়ের চেয়ে এখন অনেক বেশি তৎপর তারা। তাইতো বাঙালীর প্রাণের উৎসবকে নির্বিঘ্ন করতে আগে ভাগেই সমন্বয় বৈঠক করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এবারের পহেলা বৈশাখ উদযাপন বৈঠকে নেয়া হয়েছে বেশ কিছু নতুন সিদ্ধান্ত। যেখানে ওয়াচ টাওয়ার, গোয়েন্দা তৎপরতা বাড়ানো, আর্চওয়ে দিয়ে নিরাপত্তা তল্লাশির পাশাপাশি মঙ্গলশোভা যাত্রায় এবারো নিষিদ্ধ থাকছে ভুভুজেলা। আর শোভাযাত্রায় মুখোশ বহন করতে হবে হাতে।

এছাড়া রাজধানীতে পহেলা বৈশাখের সবধরণের আয়োজন বিকেল পাঁচটার মধ্যে শেষ করতে হবে,তবে রবীন্দ্র সরোবরে অনুষ্ঠান ছলবে সন্ধ্যা সাতটা পর্যন্ত। নিরাপত্তা পরিস্থিতি অবনতির কোনো আশঙ্কা নেই বলেও নিশ্চিত করা হয়েছে এ বৈঠকে।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন