এজেন্ডা না জেনে প্রধানমন্ত্রীর সংলাপে যোগ দেবে না ঐক্যফ্রন্ট

0

এজেণ্ডা জানার পরই প্রধানমন্ত্রীর সংলাপে অংশ নেবে কিনা, সে ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। অবশ্য, নির্বাচনের আগে যে সংলাপ হয়েছিল, সেরকম কিছু হলে চলবে না বলে মন্তব্য করেছেন ঐক্যফ্রন্ট নেতা মির্জা ফখরুল ইসলাম। তিনি বলেন, এজেন্ডা একটাই; বিতর্কিত নির্বাচন বাতিল করে পূণরায় নির্বাচন দিতে হবে। জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতাদের সিলেট সফরকালে তিনি একথা বলেন।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের পূর্বঘোষিত কর্মসূচিতে অংশ নিতে সোমবার সকালে বিমানযোগে সিলেট পৌঁছান ফ্রন্টের নেতারা। ফ্রন্টের মুখপাত্র বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলের সাথে ছিলেন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকী, গণফোরাম নেতা অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহসিন মন্টু ও জেএসডি সভাপতি আ স ম আব্দুর রব।

সিলেট পৌঁছেই ঐক্যফ্রন্ট নেতারা প্রথমে হযরত শাহজালালের মাজার জিয়ারত করেন। এসময় সাংবাদিকদের মির্জা ফখরুল বলেন, বিষয়বস্তু জানলে প্রধানমন্ত্রীর সংলাপে তারা যাবে কিনা সিদ্ধান্ত নেবে।

মির্জা ফখরুল বলেন, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট এক আছে। একটি লক্ষ্য নিয়েই আন্দোলন করছে। বিতর্কিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাতিল করে পূণরায় নির্বাচন দিতে হবে।

পরে শাহপরানের মাজার জিয়ারত শেষে ভোটের দিন সংঘাতে নিহত সিলেট-৩ আসনের বালাগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক সায়েম আহমদ সোহেলের বাড়িতে যান ঐক্যফ্রন্ট নেতারা। তার পরিবারের সাথে কথা বলেন তারা। সেখানে এক অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল বলেন, সরকার একদলীয় শাসন ব্যবস্থা কায়েম করতে নির্বাচনে প্রশাসনকে অবৈধভাবে ব্যবহার করেছে।

পরে ঐক্যফ্রন্ট নেতারা নিহত ছাত্রদল নেতার কবর জিয়ারত করেন।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন