উত্তরাঞ্চলে প্রথমবারের মতো উড়ালসেতু হচ্ছে রাজশাহীতে

0

উত্তরাঞ্চলে প্রথমবারের মতো উড়ালসেতু হচ্ছে রাজশাহীতে। রাজশাহী-নওগাঁ এবং রাজশাহী-নাটোর সড়কের সংযোগ হিসেবে এই উড়ালসেতুটি নির্মাণ করা হবে। এই উড়ালসেতুর ওপর দিয়ে চলাচল করবে দ্রুতগামী যানবাহন। আর নিচ দিয়ে যাতায়াত করবে ট্রেনসহ অন্যান্য গাড়ি। এরইমধ্যে সংযোগ সড়ক ও উড়ালসেতু নির্মাণে ঢাকার দুই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তিও স্বাক্ষর করেছে সিটি কর্পোরেশন। তবে নাগরিক সংগঠনগুলো বলছে, উন্নত বিশ্বে উড়ালসেতু এখন পুরনো ধারণা। এরচে’ বাইপাস সড়ক নির্মাণেই সিটি কর্পোরেশনের মনোযোগী হওয়া উচিত।

গ্যাস সংযোগের নামে নগরীর বিভিন্ন সড়ক খোঁড়াখুড়ি করা হয়েছে অন্তত ১০ বছর আগে। এছাড়াও দীর্ঘদিন ধরে সড়কের সংস্কার কাজ না করায় ঘর থেকে বেরিয়েই চরম দুর্ভোগে পড়ছেন নগরবাসী। কিন্তু এসব ছাপিয়ে এবার নগরীতে চলাচলকারীদের উড়ালসেতুর স্বপ্ন দেখাচ্ছে সিটি কর্পোরেশন। এজন্য প্রায় দুইশ’ কোটি টাকা খরচে রাজশাহীর সঙ্গে নওগাঁ ও নাটোর সড়কের সংযোগ করতেই চার চারলেনের রাস্তার কাজ চলছে। এই প্রকল্পের আওতায় বুধপাড়া এলাকায় উড়ালসেতু নির্মাণে এরইমধ্যে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তিও হয়েছে।

এদিকে, নগরীর যানজটসহ অন্যান্য সেবা নিশ্চিত না করেই এরকম মেগাপ্রকল্পের নামে উড়ালসেতু নির্মাণ অযৌক্তিক, বলছে সুশাসনের জন্য নাগরিক-সুজন। তবে সিটি মেয়রের দাবি, প্রতিনিয়তই বাড়ছে নগরীর পরিধি। বাড়ছে মানুষও। তাই ২০৫০ সাল নাগাদ রাজশাহীর চিত্র মাথায় রেখেই উড়ালসেতু নির্মাণে হাত দিয়েছে সিটি কর্পোরেশন। এ প্রকল্পের মোট খরচ ধরা হয়েছে ১৮২ কোটি ৬৮ লাখ টাকা। এর মধ্যে কেবল উড়ালসেতু নির্মাণে খরচ হবে প্রায় ৩০ কোটি টাকা। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

শেয়ার করুন।