ঈদুল আজহার জামাতের পর আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য পশু কোরবানি দিয়েছেন মুসলিম উম্মাহ। কুরবানির গোশত তিন ভাগে বন্টন করা মোজতাহাব। যার একভাগ বন্টন করা হয় সমাজের ছিন্নমূল মানুষের মধ্যে। মূলত আল্লাহর সন্তষ্টি লাভের জন্য পশু কুরবানি করে থাকেন ধর্মপ্রান মুসলমানরা। কবির হোসেনের ছবিতে আরো জানাচ্ছেন নাজিব বেগ।

কোরবানি অর্থ নৈকট্য অর্জন, ত্যাগ স্বীকার করা বা বিসর্জন দেওয়া। মুসলিম উম্মাহ, প্রতি বছর ১০ জিলহজ যে কুরবানি দিয়ে থাকেন, এর প্রচলন এসেছে হজরত ইবরাহিম আ: থেকে। আল্লাহর নির্দেশে প্রাণপ্রিয় সন্তান ইসমাঈলকে কুরবানি করতে উদ্যাত হয়েছিলেন তিনি।

ঈদের নামাজ শেষে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় পশু কোরবানি দেন মুসল্লিরা। নেক আমলগুলোর মধ্যে কোরবানি একটি বিশেষ ইবাদত। পশু কোরবানি করা মুখ্য বিষয় নয়; বরং আল্লাহভীতিই এখানে মুখ্য বিষয়।পবিত্র কুরআনে বলা হয়েছে, আল্লাহর কাছে পৌঁছায় না গোশত বা রক্ত, পৌঁছায় শুধু তোমাদের তাকওয়া।

এদিকে ঈদুল আজহা উপলক্ষে এসএ টিভির গ্রাহক ও শুভানুধ্যয়ীদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এসএ গ্রুপ অফ কোম্পানিজের পরিচালক নুর এ আলম রুবেল এবং শামসুল আলম পান্ত। সকালে এসএটিভি কার্যালয়ে গরু কোরবানি দিয়ে তারা করোনার এই সংকটকালে সমাজের অসহায় মানুষদের সাথে নিয়ে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করতে বৃত্তবানদের প্রতি আহ্বান জানান ।

আগামীতে করোনা মুক্ত হয়ে দেশের মানুষ ঈদ উদযাপন করবে এমন প্রত্যাশা সবার।