আগাম সতর্ক থাকায় এ বছর ভর্তি পরীক্ষায় ডিজিটাল জালিয়াতি বা প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা ঘটেনি

0

আগাম সতর্ক থাকায় এ বছর ভর্তি পরীক্ষায় ডিজিটাল জালিয়াতি বা প্রশ্নপত্র ফাঁসের ঘটনা ঘটেনি বলে জানিয়েছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান। সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা পর্যবেক্ষণ ও পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন শেষে, তিনি একথা জানান। উপাচার্য বলেন, একাডেমিক কাউন্সিলের সিদ্ধান্তের ওপর নির্ভর করে আগামী বছর থেকে ভর্তি পরীক্ষার সংস্কার হবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০১৮-২০১৯ শিক্ষাবর্ষে ‘ঘ’ ইউনিটের অধীনে প্রথম বর্ষের স্নাতক সম্মান শ্রেণীতে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয়, সারাদেশ থেকে আসা শিক্ষার্থীরা। সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ও ক্যাম্পাসের বাইরের ৮১টি কেন্দ্রে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। পরীক্ষা শুরুর কিছুক্ষণ পরই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদে ভর্তি পরীক্ষা পর্যবেক্ষণ ও পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শন করেন, উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান। পরে সাংবাদিকদের সাথে ভর্তি পরীক্ষার বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন তিনি।

এদিকে ভর্তির জন্য সবচে’ বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এই পরীক্ষায় সারাদেশ থেকে বিজ্ঞান, ব্যবসায় শিক্ষা, মানবিকসহ সব বিষয়ের মেধাবী শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। তবে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হলেও, পরীক্ষা শেষে প্রশ্নপত্র সহজ ও ভর্তির ব্যাপারে আশাবাদী অনেক শিক্ষার্থী। এবছর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শুধুমাত্র ‘ঘ’ ইউনিটে এক হাজার ৬শ’ ১৫টি আসনের বিপরীতে আবেদন করেছে ৯৫ হাজার তিনশ’ একচল্লিশ জন শিক্ষার্থী।

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন