অর্থনৈতিক ঝুঁকির মধ্যে ব্যাংকিং খাতের দুর্বলতাই সবচে’ বেশি

0

বর্তমানে দেশের অর্থনৈতিক ঝুঁকির মধ্যে ব্যাংকিং খাতের দুর্বলতাই সবচে’ বেশি। এমনটাই মনে করছে বিশ্বব্যাংক। ঝুঁকি ব্যবস্থাপনায় উদ্যোগ গ্রহণ করে ব্যাংক খাতে তদারকি বাড়ানো প্রয়োজন। সংবাদ সম্মেলনে এসব জানান বিশ্বব্যাংক ঢাকা কার্যালয়ের প্রধান অর্থনীতিবিদ ড. জাহিদ হোসেন। সরকারি হিসেবে চলিত অর্থবছরে ৭ দশমিক ছয়-পাচ ভাগ জিডিপি প্রবৃদ্ধি নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেন তিনি।

রাজধানীর আগারগাঁয়ে অর্থনৈতিক উন্নয়ন অগ্রগতি প্রতিবেদন তুলে ধরতে এই সংবাদ সম্মেলন করে বিশ্বব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়। এসময় জানানো হয়, চলতি অর্থবছর সরকারী বিনিয়োগ জিডিপির ৭ দশমিক ৪ ভাগ থেকে বেড়ে ৮ দশমিক ২ ভাগ হয়েছে। তারপরও স্থবির বেসরকারী বিনিয়োগ। বর্তমানে এই হার জিডিপির ২৩ দশমিক দুই পাচ ভাগ।

রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন ব্যাংকে তারল্য সংকট না থাকলেও বেশ কিছু বেসরকারি ব্যাংকে এ সংকট রয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্বব্যাংক।

সাম্প্রতিক সময় খেলাপি ঋণের ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন না হওয়া মূলধন ঘাটতির অন্যতম কারণ বলেও মনে করছে তারা।

বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো’র হিসেবে চলতি অর্থবছরের জিডিপি প্রবৃদ্ধি হবে ৭ দশমিক ছয় পাচ ভাগ। তবে বিশ্বব্যাংক বলছে, প্রবৃদ্ধি হতে পারে সবোর্চ্চ ৬ দশমিক ৬ ভাগ।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, দেশে দারিদ্র্যের হার কমলেও বেড়েছে বৈষম্যের হার।

 

শেয়ার করুন।

উত্তর দিন